লাইফস্টাইল

বন্ধুত্ব প্রেমে না গড়ানোর পন্থা

লাইফস্টাইল ডেস্ক : বন্ধুর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়াতে না চাইলে নিজেই নিতে পারে কিছু পদক্ষেপ।

যে কোনো সমস্যায় বন্ধুদের পাশে পেলে ও তাদের সঙ্গে কথা সহভাগিতা করলে অনেকটা হালকা অনুভব করা যায়। তবে সব কিছুরই একটা সীমারেখা আছে। যা সবসময়ই মাথায় রাখা প্রয়োজন। এতে সম্পর্ক ভালো থাকে।

সম্পর্কে-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে বন্ধুত্ব ও প্রেমের পার্থক্য এবং বন্ধুত্ব যেন প্রেমে না গড়ায় তার কিছু উপায় সম্পর্কে জানানো হল।

বন্ধুত্ব ও প্রেমের সম্পর্ক: বন্ধুর সঙ্গে যতই ভালো সম্পর্ক হোক না কেনো, প্রেম ও বন্ধুত্বের মাঝের সীমারেখাটা বোঝা জরুরি। এই পার্থক্যটা ঠিক মতো বুঝতে পারলে তা চলার পথকে অনেক সহজ ও সমস্যা বিহীন করতে সাহায্য করে।

আবেগ নিয়ন্ত্রণে রাখুন: নিজের আবেগ নিয়ন্ত্রণে রাখুন। যদি মনে হয় বন্ধুর জন্য অন্যরকম অনুভূতি খেলা করছে সেক্ষেত্রে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করা হবে সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ। নিজেকে বরং প্রশ্ন করতে পারেন কেনো এই ‘অন্যরকম’ অনুভূতি কাজ করছে। নিজে সুশৃঙ্খল-ভাবে চলুন এবং স্বাস্থ্যকর বন্ধুত্বের দিকে মনোযোগী হন।

নিজের জীবন নিয়ে খুব বেশি আলোচনা না করা: বন্ধুত্ব জীবনকে সহজ করে। সে হয়ত বিভিন্নভাবে আপনাকে সাহায্যও করছে। তারপরও নিজের মনের গভীর অনুভূতির বিষয়গুলো বন্ধুর সঙ্গে ভাগাভাগি তার মধ্যে অন্যরকম অনুভূতি খেলা করতে পারে, যা গড়াতে পারে প্রেমের অনুভূতির দিকে।

নিজের সম্পর্কে নিয়ে অপ্রয়োজনীয় কথা না বলা: নিজের সঙ্গী ও সম্পর্ক নিয়ে বন্ধুর সামনে অপ্রয়োজনীয় কথা না বলাই ভালো। এই ধরনের কথা আপনার সম্পর্কের বিষয়ে বন্ধুর কাছে ভুল ইঙ্গিত প্রকাশ করতে পারে যা পরে আপনার জন্যই খারাপ ফলাফল বয়ে আনবে।

বন্ধুত্ব যেমনই হোক, বিশেষ কিছু মুহুর্তে বন্ধুর প্রতি দুর্বলতা অনুভব করতে পারেন। দুজনেই যেহেতু প্রাপ্তবয়স্ক এমন পরিস্থিতি তৈরি হলে খোলাখুলিভাবে কথা বলুন। এতে কোনো রকম ভুল বোঝাবুঝি হওয়ার সম্ভাবনা কমবে। মনে রাখতে হবে, যে কোনো সমস্যা সমাধানের ভালো মাধ্যম হচ্ছে কথা বলা। তাই মন খুলে কথা বলুন, সম্পর্ক ভালো থাকবে।

 

 

ছবি: রয়টার্স।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close