মুক্তমত

মহামারী প্রতিরোধে হজরত ওমর(রা.) এর সিরিয়া সফর স্থগিতের সিদ্ধান্তই ছিল যুগোপযোগী পদক্ষেপ

শামসুল হুদা লিটন : ৬৩৯ খ্রিস্টাব্দ মোতাবেক ১৮ হিজরির ঘটনা। তখন হযরত ওমর (রাঃ) অর্ধ জাহানের খলিফা। হযরত ওমর( রাঃ) শাসনামলে একবার সিরিয়া-প্যালেস্টাইনে দেখা দিয়েছিল ভয়াবহ মহামারী প্লেগ রোগ। খলিফা ওমর (রাঃ) সিরিয়া সফর করবেন। মদিনা শহর থেকে সিরিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়ে পথিমধ্যে তিনি জানতে পারেন সিরিয়ায় মহামারী প্লেগ দেখা দিয়েছে। তাতে তিনি তাঁর সিরিয়া সফর স্থগিত করেছিলেন। মহামারী প্রতিরোধ ও আত্মরক্ষায় তা ছিল হজরত ওমর(রাঃ) এর সময় উপযোগী ও যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ।

মদিনা থেকে ‘সারগ’ নামক অঞ্চলে পৌছলে সেনাপতি আবু উবায়দাহ( রাঃ) জানান যে, সিরিয়ায় প্লেগ তথা মহামারীর প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। তিনি ইসলামে ইতিহাস এ ঘটনা তাউন আম্মাউস নামে পরিচিত। সে সময় তিনি সফর স্থগিত করেছিলেন। সে ঘটনা মুসলমানদের জন্য আজও অনুকরণীয় ও শিক্ষনীয়।
হজরত ওমর (রাঃ) সেই ঘটনায় রয়েছে করোনা প্রতিরোধ ও প্রতিকারের ম্যাসেজ।

সিরিয়ার সফর স্থগিত করার আগে তিনি সাহাবিদের মতামত ও পরামর্শ নিয়ে ছিলেন।

কিছু সাহাবা সিরিয়ায় যাওয়ার পক্ষে মত দেন। আবার কিছু সাহাবা বললেন,‘খলিফার সিরিয়া যাওয়া উচিত হবে না। প্রবীণ কুরাইশগণ মতামত ব্যক্ত করলেন যে-

‘সিরিয়ার সফর স্থগিত করে আপনার মদিনায় প্রত্যাবর্তন করা উচিত। আপনি আপনার সঙ্গীদের মহামারী প্লেগের দিকে ঠেলে দেবেন না।’

হজরত ওমর রাদিয়াল্লাহু আনহু প্রবীণ কুরাইশদের মতামত গ্রহণ করে সিরিয়ার সফর স্থগিত করে মদিনায় ফিরে গেলেন। তৎকালীন সময়ে মহামারির কারনে হযরত ওমর (রাঃ) সিরিয়া সফর বাতিল করার ঘটনা থেকে মুসলিম উম্মাহ বর্তমান বিশ্বের চরম আতংক করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করার শিক্ষা গ্রহণ করতে পারে।

 

লেখকঃ
শামসুল হুদা লিটন
সহকারী অধ্যাপক
তারাগঞ্জ কলেজ
কাপাসিয়া, গাজীপুর।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close