সারাদেশ

শ্রীপুরে কিশোরদের ঘরে রাখতে বই বিতরণ করলেন এএসপি আল-মামুন

বার্তাবাহক ডেস্ক : করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধে প্রায় সবকিছুই বন্ধ থাকলেও কিশোররা তাদের মনকে ঘরে আটকে রাখতে পারছেন না।

তারা বাবা-মায়ের নিষেধ না মেনে সহপাঠী বন্ধুদের নিয়ে মাঠে খেলতে বের হয়ে পড়ছে। তাদের দুরন্তপনা মনকে করোনাভাইরাস আটকাতে পারেনি।

আর এ সব কিশোরকে ঘরে রাখার জন্য বিশেষ একটি উদ্যোগ নিয়েছেন গাজীপুরের কালিয়াকৈর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আল-মামুন।

বুধবার বিকালে শ্রীপুরের মাওনা ইউনিয়নের পশ্চিম চকপাড়া গ্রামের একটি মাঠে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী প্রায় ৩০-৪০ জন কিশোরের হাতে তিনি বই তুলে দেন।

কালিয়াকৈর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আল-মামুন বলেন, এ সব কিশোরকে ঘরে থাকার জন্য তিনি নিজ উদ্যোগে তাদের হাতে বই তুলে দেন। এর বিপরীতে তিনি তাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ঘরে থাকার অনুরোধ করেন। আর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতেই তাদের হাতে বই তুলে দিচ্ছেন। এ সময় কিশোরদের খেলার সামগ্রী স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে জমা রাখেন।

কিশোর সুজন মিয়া বলে, আব্বু বাসার বাহিরে যেতে নিষেধ করেছেন। পাশের বাড়ির বন্ধু বিকালে বাসার জানালা দিয়ে ডাক দেয় মাঠে যাওয়ার জন্য। পরে বাবার চোখ ফাঁকি দিয়ে মাঠে খেলতে যাই বন্ধুদের সঙ্গে। পুলিশ করোনাভাইরাসের খারাপ দিক নিয়ে আমাকে বলেছে এবং বাসায় সময় কাটানোর জন্য সবার হাতে একটি করে বই তুলে দিয়েছে।

অপর কিশোর শাহরিয়ার হাসান বলে, বিকাল হলেই মা-বাবার চোখ ফাঁকি দিয়ে আমরা চার-পাঁচ বন্ধু মিলে মাঠে খেলার জন্য বের হয়ে পরতাম। করোনাভাইরাস সম্বন্ধে কেউ আমাদের কিছু বলেনি। তাই আমরা এই ভাইরাসের খারাপ দিক বুঝতে পারিনি।

সে আরও বলে, এএসপি আল-আমিন আমাদের এ ভাইরাসের খারাপ দিক নিয়ে জানিয়েছেন এবং বাড়িতে ঘরে বসে সময় কাটানোর জন্য আমাদের বই উপহার দিয়েছেন। আমরা এখন থেকে করোনাভাইরাস চলে না যাওয়া পর্যন্ত বাড়ির বাইরে বের হব না।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close