আলোচিত

পুলিশ পরিদর্শককে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার রহমত ৭ দিনের রিমান্ডে

বার্তাবাহক ডেস্ক : গাজীপুরের কালীগঞ্জে জঙ্গল থেকে আগুনে পোড়া বস্তাবন্দী পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) পরিদর্শক মামুন ইমরান খানের পোড়া মরদেহ উদ্ধার ঘটনায় গ্রেফতার রহমত উল্লাহকে সাত দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার রহমত উল্লাহকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় রাজধানীর বনানী থানায় দায়ের করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য দশ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান। শুনানি শেষে ঢাকা মূখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) সাইফুজ্জামান হিরো সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, ”গ্রেফতারকৃত আসামি প্রাথমিক স্বীকার করেছেন যে, তার সহযোগী আসামি স্বপন, দিদার, মিজান, আতিক, শেখ হৃদয় ওরফে আপন ওরফে রবিউল, সুরাইয়া আক্তার কেয়া, মেহেরুন নেছা ঝর্ণা ওরফে আফরিন, ফারিয়া বিনতে মীম ওরফে মাইশাসহ আরও অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন আসামি পূর্ব পরিকল্পিতভাবে গত ৮ জুলাই রাত আটটায় বনানী থানাধীন ২/৩ নং রোডস্থ, ৫নং বাড়ির, ২/এ অ্যাপার্টমেন্টের দ্বিতীয় তলার রুমে ভিকটিম মো. মামুন ইমরান খানকে ফোন করে ডেকে এনে মারধর করে হত্যা করেন। পরে লাশ গুম করার জন্য বস্তাবন্দি করে গাড়িতে করে কালীগঞ্জ উপজেলায় উলুখোলা এলাকায় রাস্তার পাশের বাশের ঝোঁপের মধ্যে লাশ পেট্রল দিয়ে পুড়িয়ে ফেলে আসে। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে উল্লিখিত আসামিদের গ্রেফতার ও শনাক্তকরণ এবং হত্যার সঠিক রহস্য জানতে আসামিকে ১০ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।”

ঢাকায় কর্মরত পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মামুন ইমরান খান গত রোববার সকালে সবুজবাগ এলাকায় তার ভাইয়ের বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন। মঙ্গলবার সকালে গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলায় উলুখোলা এলাকায় শরীর ঝলসানো মৃতদেহ দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দহে ঢাকা থেকে রহমত উল্লাহকে (৩৫) গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ। তাকে গাজীপুরে আনা হলে তিনি মরদেহ শনাক্ত এবং হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন।

পরিদর্শক মামুন ইমরান মুত্যৃর ঘটনায় তার ভাই বাদী হয়ে রাজধানীর বনানী থানায় মামলা করেন।

 

 

এ সংক্রান্ত আরো জানতে…

এক নারীর জন্মদিনের পার্টিতে ডেকে নিয়ে খুন করা হয় পুলিশ পরিদর্শককে?

পুলিশ ইন্সপেক্টরকে হত্যার পর বস্তাবন্দি করে পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা!

 

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close