আলোচিত

গাজীপুরে একদিনে ‘সর্বোচ্চ ৩৭’ জন করোনা পজেটিভ

বার্তাবাহক ডেস্ক : গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ প্রথমবারের মত একদিনে সর্বোচ্চ ৩৭ করোনা করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে।

নমুনা পরীক্ষার পর শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) রাতে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) থেকে রিপোর্ট আসলে একদিনে সর্বোচ্চ ৩৭ জন করোনা পজেটিভ বলে জানা যায়।

১৭ এপ্রিল পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী গাজীপুর জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়াঁলো মোট ১৪৯ জন।

গাজীপুর সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, নতুন করে আক্রান্ত ৩৭ জনের মধ্যে কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ সর্বাধিক ২৭ জন, কালিয়াকৈরে ৪ জন, সদর উপজেলায় (মহানগর) ৩ জন, কালীগঞ্জে এক নার্সসহ ২ জন এবং শ্রীপুরে ১ জন রয়েছে।

কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সূত্রে জানা গেছে, কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ এ হাসপাতালের মোট ১৯ জন নতুন করে করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ২ জন নার্স, উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার (সেকমো) ১ জন, আউটসোর্সিং এর ২ জন এবং হাসপাতালের কর্মরত আরো ১৩ কর্মী রয়েছেন। এছাড়াও উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নের ৮ জন নতুন করে পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে।

কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: আব্দুস সালাম সরকার নিজেই সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসা. ইসমত আরা বলেন, কাপাসিয়া স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ হাসপাতালের ১৯ জন এবং উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ৮ জন নতুন করে পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১৯ জনকে প্রাথমিক অবস্থায়  হাসপাতালেই আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ৮ জনকে হোম আইসোলেশনে রাখা হবে।

কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রবীর কুমার সরকার বলেন, কালিয়াকৈর পৌরসভার লতিফপুর এলাকার এক নারী, সৈয়দপুর গ্রামের এক পুরুষ এবং ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নের পাবুরিয়ারচালা এলাকার এক নারী ও এক পুরুষ নতুন করে করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে। সকলকেই হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

গাজীপুর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহিন বলেন, মহানগর এলাকার নতুন করে আরো ৩ জন করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে। তাদের হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ছাদেকুর রহমান আকন্দ বলেন,  কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত এক নার্সসহ নতুন করো আরো দুইজন (কোভিড-১৯) করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ছয়জন চিকিৎসকসহ ১৪ জন ও কালীগঞ্জ থানা এলাকায় কর্মরত ডিএসবি’র এক এসআইসহ মোট ৩৭ জন করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে।

শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক এএসএম ফাতেহ্ আকরাম বলেন, তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপির বাড়ি এলাকার এক নারী নতুন করে করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়েছে। তিনি ঢাকা থেকে এসেছেন বলে জানা গেছে। তাকে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

 

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close