জাতীয়

পরিস্থিতি না বদলালে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকবে : প্রধানমন্ত্রী

বার্তাবাহক ডেস্ক : বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরিস্থিতির উন্নতি না হলে আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুল ও কলেজ বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গণভবনে থেকে জেলা প্রশাসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিং এ প্রধানমন্ত্রী সোমবার এ কথা বলেন।

“স্কুল-কলেজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান একটাও আমরা এখন খুলবো না। সেটা আমরা কখন খুলবো, অন্তত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই স্কুল-কলেজ সবই বন্ধ থাকবে, যদিও না করোনাভাইরাস তখনো অব্যাহত থাকে।”

“যখন এটা (করোনাভাইরাস) থামবে, আমরা তখনি খুলবো।”

বাংলাদেশে মার্চ মাসের আট তারিখে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হবার পর ১৬ই মার্চ সরকার ঘোষণা দেয়, ১৭ই মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল, কলেজসহ সব ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

তবে এর আগেই ঢাকার অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিজ উদ্যোগে কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে।

পয়লা এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাও তখন স্থগিত করা হয়।

এদিকে, সরকারের ঘোষিত সাধারণ ছুটিতে কার্যত লকডাউন পরিস্থিতির কারণে এ বছরের এসএসসি অর্থাৎ মাধ্যমিক ও সমমান পরীক্ষার ফল এখনো প্রকাশ করা হয়নি।

ঐ পরীক্ষায় ২০ লাখের বেশি শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছিল।

পরে সরকার যখন প্রথম দফা সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে, তখন সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটির মেয়াদ ৯ই এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

ওই সময় পর্যন্ত সকল স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় ও কোচিং সেন্টারের শ্রেণীকক্ষে পাঠদান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় শিক্ষা মন্ত্রনালয়।

এরপর দফায় দফায় সাধারণ ছুটির মেয়াদ বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটির মেয়াদ বাড়ানো হয়।

সর্বশেষ করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আগামী ৫ই মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বৃদ্ধি করেছে সরকার।

সরকারের এই ছুটির সঙ্গে সমন্বয় করেই মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আগামী ৫ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এই সময়ের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা যাবে না বলে ২৩শে এপ্রিল সরকারের এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে।

তবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ঈদুল ফিতর পর্যন্ত সব প্রাথমিক বিদ্যালয় ছুটি ঘোষণা করেছে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close