সারাদেশ

কালীগঞ্জে ছয় চিকিৎসক ও ১৬ পুলিশসহ ‘করোনা মুক্ত’ ৮৫ জন

বার্তাবাহক ডেস্ক : গাজীপুরের কালীগঞ্জে করোনা (কোভিড-১৯) শনাক্ত ৯১ জনের মধ্যে ছয় চিকিৎসক ও ১৬ পুলিশসহ ৮৫ জন ‘করোনা মুক্ত’ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন।

শনিবার (৯ মে) পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী ‘করোনা মুক্ত’ হিসেবে ৮৫ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাদেকুর রহমান আকন্দ।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ এপ্রিল কালীগঞ্জের স্থানীয় একজনসহ অন্য জেলা থেকে প্রবেশ করেছে এমন আরো ৪ জন করোনাভাইরাস পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়। এরপর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৬ চিকিৎসক এবং কালীগঞ্জ থানায় কর্মরত ১৬ পুলিশ সদস্যসহ মোট ৯১ জন করোনা (কোভিড-১৯) পজেটিভ শনাক্ত হয়। তাঁদের মধ্যে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ৮ জনকে। বাকি ৮৩ জনকে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়। করোনাভাইরাস নেগেটিভ হওয়ায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল থেকে ৭ জনকে এবং হোম আইসোলেশনে থাকা ৬ চিকিৎসক ও কালীগঞ্জ থানার ১৬ পুলিশ সদস্যসহ ৮৫ জনকে ‘করোনা মুক্ত’ ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত ৮৫ ব্যক্তির মধ্যে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৬ জন চিকিৎসক ছাড়াও ৬ নার্সসহ মোট ২০ জন এবং কালীগঞ্জ থানা এলাকায় কর্মরত ডিএসবি’র ১ এসআই’সহ কালীগঞ্জ থানার ১৬ পুলিশ সদস্য রয়েছেন। এর বাহিরে আরো ৪৩ জন হোম আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন।

ঢাকায় থেকে করোনা শনাক্ত হওয়া কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসক বর্তমানে কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালে এবং কালীগঞ্জে শনাক্ত হওয়া এক রোগী কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এছাড়াও এক নার্সসহ চিকিৎসাধীন অবস্থায় হোম আইসোলেশনে আছেন ৫ জন। তাঁদের টেলিমিডিসিন সেবার মাধ্যমে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, শনিবার (৯ মে) পর্যন্ত করোনাভাইরাস শনাক্তের জন্য সর্বশেষ ৫৭ জনের নমুনাসহ মোট ৫৮৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। যার মধ্যে সর্বমোট ৯১ জন করোনা পজেটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাদেকুর রহমান আকন্দ বলেন, শনিবার (৯ মে) পর্যন্ত কালীগঞ্জে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৯১ জন। তাদের মধ্যে করোনা মুক্ত হিসেবে ৮৫ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। বাকি ৫ জন হোম আইসোলেশনে টেলিমিডিসিন সেবার মাধ্যমে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। একজন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

কালীগঞ্জ-কাপাসিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পংকজ দত্ত বলেন, কালীগঞ্জ থানা এলাকায় কর্মরত ডিএসবি’র একজন উপ-পরিদর্শক (এসআই) গত ১৬ এপ্রিল প্রথম করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়। এরপর কালীগঞ্জ থানায় কর্মরত আরো ৪ জন এসআই, প্রশিক্ষণকালীন উপ-পরিদর্শক (পিএসআই) ২ জন, এএসআই ৩ জন, একজন কনস্টেবল, বিশেষ আনসার একজন এবং সার্কেল অফিসে কর্মরত ৪ জনসহ মোট ১৬ পুলিশ সদস্য করোনা পজেটিভ (আক্রান্ত) শনাক্ত হয়। সকলেই আইসোলেশনে থেকে এখন ‘করোনা মুক্ত’। তাদের সকলের করোনা নেগেটিভ হওয়ায় ১৬ পুলিশ সদস্যকেই কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে ‘করোনা মুক্ত’ হিসেবে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close