আলোচিত

করোনায় দেশে প্রথম কারাবন্দীর মৃত্যু

বার্তাবাহক ডেস্ক : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে এক বন্দীর মৃত্যু হয়েছে। দেশে মোট ২৩৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেও করোনায় এই প্রথম কোনো কারাবন্দীর মৃত্যু হলো। ওই কারাবন্দী গত দুই মাস ধরে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে ছিলেন।

সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. আনিসুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত রোববার সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কারাবন্দীর মৃত্যু হয়। সোমবার সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার পর তার রিপোর্ট করোনা পজিটিভ আসে।

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া ওই বন্দীর বাড়ি সিলেটের কানাইঘাট উপজেলায়। গত ৫ মার্চ একটি খুনের মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর গত শুক্রবার তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে কারা কর্তৃপক্ষ তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

তবে তার শরীরে করোনার উপসর্গ থাকায় ওসমানী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে পাঠান। পরদিন শনিবার তার নমুনা সংগ্রহ করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। নমুনা সংগ্রহের পরের দিন রোববার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। আর সোমবার নমুনা পরীক্ষায় তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

কারা সূত্রে আরও জানা গেছে, ওই বন্দী কারাগারের যে ওয়ার্ডে ছিলেন তা সোমবার রাতে লকডাউন করা হয়েছে। কারাগারে থাকাকালে কোন কোন বন্দী তার সংস্পর্শে এসেছিলেন তা শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, সিলেট বিভাগে মোট ২৯৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ ভাইরাসে সিলেট বিভাগে মোট ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা দেশে প্রথম কোনো চিকিৎসকের মৃত্যুও ঘটে এ বিভাগে।

গত ১৫ এপ্রিল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দিন ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close