গাজীপুরসারাদেশ

ঘুরবে পরিবহনের চাকা, সচল হচ্ছে দেশ

বার্তাবাহক ডেস্ক : সাধারণ ছুটি আর বাড়ছে না। ৩১ মে থেকে স্বাস্থ্যবিধির কিছু শর্ত মেনে খুলছে অফিস। শুরুতে গণপরিবহণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত জানালেও পরে মানুষের যাতায়াতের সুবিধার্থে সীমিত আকারে সেটাও খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ বিষয়ে একটি আদেশে জারি করা হয়। আদেশে বলা হয়, ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত সময়ে গণপরিবহণগুলো কীভাবে চলবে সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগ প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারি করবে।

‘‘উক্ত সময়ে সীমিত পরিসরে নির্দিষ্ট সংখ্যক যাত্রী নিয়ে স্বাস্থ্যসম্মত বিধি নিশ্চিত করে গণপরিবহণ, যাত্রীবাহী নৌযান ও রেল চলাচল করতে পারবে। তবে সব অবস্থায় মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জারি করা নির্দেশনা কঠোরভাবে মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে।” বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষ ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত নিজ ব্যবস্থাপনায় বিমান চলাচলের বিষয়টি বিবেচনা করবে বলেও ওই আদেশে জানানো হয়।

বৈশ্বিক মহামারী রূপ নেওয়া মারাত্মক সংক্রামক রোগ কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধে গত ২৬ মার্চ থেকে দেশের অফিস-আদালত বন্ধ; তখন থেকে গণপরিবহণও বন্ধ রয়েছে।

ঘরবন্দি থাকার এই সময়ে কিছু বিধি-নিষেধ শিথিলের পর যখন সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি বাড়ছে; তখন ঈদ কাটিয়ে অফিস ও গণপরিবহণ চালু হতে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মত একদিনে রোগী শনাক্তের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়িয়েছে। এদিন ২ হাজার ২৯ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়ে। দেশে মোট শনাক্ত রোগী ৪০ হাজার ৩২১ জন। মোট মৃত্যু ৫৫৯।

অর্থনৈতিক বিপর্যয় থেকে দেশকে রক্ষা করতে সীমিত পরিসরে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড শুরুর সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আপাতত খুলছে না; চলাফেরায় বিধি-নিষেধও আগের মতো থাকছে।

এছাড়া, এই সময়ে এক জেলা থেকে অন্য জেলায় চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। প্রতিটি জেলার প্রবেশ ও বের হওয়ার পথে চেক পোস্টের ব্যবস্থা থাকবে। জেলা প্রশাসন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় এটা বাস্তবায়ন করবে।

সভা-সমাবেশ, গণজমায়েত ও অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে৷ তবে মসজিদ ও ধর্মীয় উপসনালয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রার্থনা চলবে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close