গাজীপুরসারাদেশ

কালিয়াকৈরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক সন্ত্রাসী নিহত

বার্তাবাহক ডেস্ক : গাজীপুরের কালিয়াকৈরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক যুবক নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, নিহত ওই যুবক চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তিনি মাদক ব্যবসা, চুরি, ডাকাতিসহ ১০টি মামলার আসামি।

বুধবার গভীর রাতে উপজেলার হাবিবপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই যুবকের নাম মো. হানিফ (৩০)। তিনি মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার সাহেব রামপুর এলাকার কাঞ্চন সিকদারের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কালিয়াকৈর উপজেলার হাবিবপুর এলাকার মজিবর রহমানের মেয়েকে বিয়ে করেন মো. হানিফ। বিয়ের পর থেকে তিনি শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করতেন। সেখানে থেকে তিনি মাদক ব্যবসা, চুরি, ডাকাতিসহ নানা অপকর্মের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। তিনি পালিয়ে বেড়াতেন। বুধবার রাতে হানিফসহ কয়েকজন হাবিবপুর এলাকার ঝিকঝাক মাঠের পাশে অবস্থান করছেন বলে পুলিশ খবর পায়। রাত তিনটার দিকে কালিয়াকৈর থানা–পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে, পরে পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এতে হানিফ গুলিবিদ্ধ হন। অন্যরা দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় হানিফকে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দেশীয় এলজি বন্দুক ও তিনটি কার্তুজ উদ্ধার করেছে। আর বন্দুকযুদ্ধের সময় পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন। তাঁরা হলেন কালিয়াকৈর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাহবুর রহমান, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সুলতান মিয়া, কনস্টেবল আ. মালেক ও সুমন মিয়া।

বন্দুকযুদ্ধে ওই যুবক নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে কালিয়াকৈর থানার এসআই মুফতি মাহমুদ বলেন, হানিফ এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তাঁর বিরুদ্ধে কালিয়াকৈর থানায়, মাদক, অস্ত্র, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ১০টি মামলা রয়েছে।

সূত্র: প্রথম আলো

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close