গাজীপুরবদলি-প্রদায়ন

ডিবি পুলিশের সর্বোচ্চ পদের প্রধান হলেন এ কে এম হাফিজ আক্তার

বার্তাবাহক ডেস্ক : ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগে (ডিবির) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হিসেবে এ কে এম হাফিজ আক্তারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এই পদটিই ডিবি পুলিশের সর্বোচ্চ পদ।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ডিএমপি কমিশনার মোহাঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার) স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ কে এম হাফিজ আক্তারকে এ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

এ কে এম হাফিজ আক্তার গাজীপুর জেলার সদর উপজেলার বাড়িয়া ইউনিয়নের সন্তান।

তিনি সর্বশেষ রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সম্প্রতি তাঁকে অতিরিক্ত কমিশনার হিসেবে ডিএমপি’তে নিয়োগ দেওয়া হয়।

এর আগে উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের ট্রান্সপোর্ট শাখায় কর্মরত ছিলেন।

গত ২ সেপ্টেম্বর ডিএমপি’র অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) আবদুল বাতেনকে রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হিসেবে বদলি করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এ কে এম হাফিজ আক্তার আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ থেকে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদ থেকে বিএসসি এবং একই বিশ্ববিদ্যালয়ের এগ্রোনোমি বিভাগ হতে এমএস ডিগ্রি লাভ করেন। এছাড়া তিনি আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ থেকে এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন।

তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএস ১৭ তম ব্যাচ) পরীক্ষার মাধ্যমে ১৯৯৮ সালে পুলিশ ক্যাডারে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন।

এ কে এম হাফিজ আক্তার সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসেবে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে কর্মরত ছিলেন। সার্কেল এএসপি হিসেবে তিনি চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের পটিয়া সার্কেলে কর্মরত ছিলেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে তিনি চট্টগ্রাম জেলা পুলিশে কর্মরত ছিলেন। পুলিশ সুপার (প্রশাসন) হিসেবে পুলিশ একাডেমি সারদায় কর্মরত ছিলেন। ডেপুটি পুলিশ কমিশনার হিসেবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রান্সপোর্ট বিভাগ, গুলশান বিভাগ, চ্যান্সেরি বিভাগ ও উত্তরা বিভাগে দায়িত্ব পালন করেন। পুলিশ সুপার হিসেবে তিনি টাঙ্গাইল ও চট্টগ্রাম জেলার দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৬-২০০৭ সালে তিনি কসোভো জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে দায়িত্ব পালন করেন।

পুলিশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য তিনি প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম) সেবা পদক এবং আইজিপি এক্সপ্লোরারি গুড সার্ভিস (আইজিপি ব্যাজ) পদকে ভূষিত হয়েছেন।

তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close