আলোচিতসারাদেশ

বিবস্ত্র করে তরুণীকে নির্যাতন : প্রধান আসামিসহ গ্রেপ্তার ৪

বার্তাবাহক ডেস্ক : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে স্বামীকে বেঁধে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে পাশবিক অত্যাচার চালানোর ঘটনায় প্রধান আসামি দেলোয়ার ও বাদলসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে দেলোয়ারকে নারায়ণগঞ্জ ও বাদলকে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে রবিবার (৪ অক্টোবর) বিকেলে মো. আবদুর রহিমকে (২০) ও রাত ১১টারদিকে মো. রহমত উল্যাহকে (৪১) বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ মামলার আরো ৫ আসামি এখনো পলাতক।

আসামিদের গ্রেপ্তারের বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.হারুন উর রশীদ।

জানা যায়, গত ২ সেপ্টেম্বর একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকার নূর ইসলাম মিয়ার বাড়িতে হানা দেয় স্থানীয় দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার, বাদল ও তাদের সহযোগিরা। এসময় ওই তরুণীর স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

এসময় তিনি বাধা দিলে ওই তরুণীকে বিবস্ত্র করে বেধরক মারধর করে ও মোবাইলফোনে ভিডিওচিত্র ধারণ করে। ঘটনার এক মাসের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও ওই বখাটে বাহিনী এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় ভয়ে তারা থানায় অভিযোগ জানাতে পারেননি।

রবিবার সকাল থেকে একটি ফেসবুক আইডিতে ওই ঘটনার ভিডিওচিত্রটি প্রকাশিত হওয়ার পরপরই তা ভাইরাল হয়। এতে টনক নড়ে স্থানীয় প্রশাসনের। বাড়ি থেকে পালিয়ে যাওয়া গৃহবধূকে তার এক আত্মীয়ের বাসা থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে রাতেই তিনি বেগমগঞ্জ থানায় ৯ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

ভুক্তভোগী ওই তরুণীর বাবা এ বিষয়ে বলেন, ‘আমি নিরীহ লোক। সন্ত্রাসীদের ভয়ে কোনো কথা বলার সাহস পাই না। আমি শুধু আল্লাহর কাছে বিচার চাই।’

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close