বিনোদন

“কাণ্ডজ্ঞানহীন রিপোর্টিং”: গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে এবার শাহরুখ, সালমান, আমিরদের মামলা

বিনোদন বার্তা : ভারতীয় কিছু গণমাধ্যমের “কাণ্ডজ্ঞানহীন রিপোর্টিংয়ের” বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বলিউডের বড় বড় কয়েকটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান।

গত জুনে বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর এ ধরণের পদক্ষেপ আসলো।

পুলিশের ধারণা, তিনি আত্মহত্যা করেছেন। কিন্তু সংবাদ মাধ্যমগুলো মাসের পর মাস ধরে এ সম্পর্কিত মামলা নিয়ে নানা ধরণের সংবাদ পরিবেশন করে যাচ্ছে।

মামলা করা এসব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শাহরুখ খান, আমির খান এবং সালমান খানের প্রতিষ্ঠানও রয়েছে।

“আসামীদের চালানো নোংরা প্রচারণার কারণে বলিউডের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের জীবিকা মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে,” মামলায় বলা হয়।

সম্প্রতি কয়েক মাস ধরে ওই অভিনেতার মৃত্যুর খবরই ভারতীয় মিডিয়ায় প্রাধান্য পেয়েছে।

সব মিলিয়ে ৩৪ জন প্রযোজক এবং চারটি চলচ্চিত্র বিষয়ক প্রতিষ্ঠান মিলিতভাবে দুটি ভারতীয় মিডিয়া চ্যানেল এবং চার জন উপস্থাপকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। তবে তারা এখনো অভিযোগের বিষয়ে কোন মন্তব্য করেনি।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, “বলিউডের সদস্যদের গোপনীয়তায় হস্তক্ষেপ করা হয়েছে, পুরো বলিউডকে অপরাধীর মতো উপস্থাপন করে এর সদস্যদের সম্মানের প্রতি অপূরণীয় ক্ষতি করা হয়েছে, বলিউডকে মাদক সংস্কৃতির সাথে এক করে দেখানো হয়েছে এবং সাধারণ মানুষের মনে বলিউডকে অপরাধমূলক কাজের প্রতিশব্দ হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে।”

গত ১৪ই জুন ৩৪ বছর বয়সী মি. রাজপুতের মরদেহ তার মুম্বাইয়ের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হয়। সেসময় পুলিশ বলেছিল যে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

কিন্তু পরে তার পরিবার তার বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেয়াসহ অন্যান্য অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগ দায়ের করেছে। তবে এসব অভিযোগই অস্বীকার করেছেন রিয়া চক্রবর্তী।

এরপর থেকে বলিউডের বিভিন্ন অভিনেতা এমনকি দীপিকা পাড়ুকোনকেও জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হয়েছে মি. রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তের অংশ হিসেবে। তবে কারো বিরুদ্ধেই কোন অভিযোগ আনা হয়নি।

তিনটি সংস্থা বর্তমানে এই মামলার তদন্ত করছে।

তদন্তকারীদের কাছ থেকে পাওয়া সামান্য তথ্যের উপর ভিত্তি করে মি. রাজপুতের সাথে কী ঘটেছিল এবং কারা দায়ী- সে বিষয়ে নানা ধরণের গুজব এবং অনুমান ছড়িয়ে পড়ছে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close