গাজীপুরসারাদেশ

কালীগঞ্জে ‘বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার’ অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী: ধর্ষক গ্রেপ্তার

বার্তাবাহক ডেস্ক : কালীগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী(১৫) স্কুল থেকে পরীক্ষার ফলাফল আনার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে দেখা করতে যায় মোবাইলে পরিচয়ের সূত্রে তার এক বন্ধুর সঙ্গে। পরে ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক সিএনজি অটোরিক্সায় তুলে অপহরণ করে তার বন্ধু বদরুল আহাম্মদ খান(২৫) ও অজ্ঞাত আরো কয়েক যুবক। এরপর ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় বিভিন্নস্থানে নিয়ে জিম্মি করে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে বদরুল।

রোববার (১০ জানুয়ারী) শ্রীপুর থানা এলাকা থেকে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার এবং কালীগঞ্জ পৌর এলাকার দেওপাড়া এলাকা থেকে ধর্ষক বদরুলকে(২৫) গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শহিদুল ইসলাম মোল্লা।

গ্রেপ্তার বদরুল শ্রীপুরের নান্দিয়া সাগুন এলাকার মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে।

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর বাড়ি কালীগঞ্জের মুক্তারপুর ইউনিয়নের বড়গাঁও গ্রামে। সে আজমতপুর আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

এ ঘটনায় রোববার (১০ জানুয়ারী) দিবাগত রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন {মামলা নাম্বার ৮(১)২১}।

থানা ও এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০২০ সালের ১৯ ডিসেম্বর সকাল ১০টার দিকে আজমতপুর আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী স্কুল থেকে পরীক্ষার ফলাফল আনার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর সে আর বাড়ি ফিরেনি এবং তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে গত ২১ ডিসেম্বর ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (৯২৭) করে। এর ১৯ দিন পর রোববার (১০ জানুয়ারী) রাতে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ওই ছাত্রী জানায় বদরুলের সঙ্গে তার পরিচয় হয়েছিল মোবাইল ফোনে। এর পরে বিভিন্ন সময় তাদের মধ্যে কথা হতো। গত ১৯ ডিসেম্বর সে বদরুলের সঙ্গে দেখা করতে জাঙ্গালীয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে যায়। পরে বদরুলসহ তার অজ্ঞাত আরো কয়েক বন্ধু মিলে ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক সিএনজি অটোরিক্সা তুলে অপহরণ করে জাঙ্গালীয়া এলাকায় তার এক ভগ্নিপতির বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর থেকে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় বিভিন্নস্থানে নিয়ে জিম্মি করে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে বদরুল।

পরে রোববার (১০ জানুয়ারী) দিবাগত রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করে। পরে কালীগঞ্জ পৌর এলাকার দেওপাড়া থেকে বদরুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শহিদুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ”শ্রীপুর থানা এলাকা থেকে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার এবং কালীগঞ্জ পৌর এলাকার দেওপাড়া এলাকা থেকে ধর্ষক বদরুল আহাম্মদ খানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে। সোমবার (১১ জানুয়ারী) দুপুরে ধর্ষক বদরুলকে গাজীপুর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মামলার তদন্ত কার্যক্রম ও অনান্য আসামী গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।”

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close