গাজীপুরসারাদেশ

কালীগঞ্জে স্কুলে ভর্তি হতে যাওয়ার পর ছাত্রীকে অপহরণ: ১১ দিন পর উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

বার্তাবাহক ডেস্ক : কালীগঞ্জে স্কুলে ভর্তি হতে যাওয়ার পর নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে(১৪) বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকা থেকে অপহরণের ১১ দিন পর উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অপহৃত ওই ছাত্রীকে বুধবার (১৩ জানুয়ারি) নওগাঁ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এর আগে গত ২ জানুয়ারি (শনিবার) কালীগঞ্জের ‘জাঙ্গালীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে’ ভর্তি হতে যাওয়ার পর সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকা থেকে ওই ছাত্রীকে অপহরণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করে {মামলা নাম্বার ১০(১)২১}।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাদিকুর রহমান এ তথ্য জানান।

অপহরণের ঘটনায় জড়িত কালীগঞ্জের জামালপুর ইউনিয়নের কাপাইশ বালালিয়া এলাকার ফজলুল হক ওরফে ফজু শেখের ছেলে অটো চালক মোস্তাকিম শেখ (২০) সহ আরো ৪/৫ জন। মোস্তাকিম অটো চালক।

অপহরণের ঘটনায় জড়িত মোস্তাকিম শেখের বাবা ফজলুল হক ওরফে ফজু শেখকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অন্যরা পলাতক।

উদ্ধার হওয়া ওই ছাত্রী জাঙ্গালীয়ার মিনিড়াইল গ্রামের বাসিন্দা। সে ‘জাঙ্গালীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও ভিকটিমের বাবা জানায়, গত ২ জানুয়ারি (শনিবার) সকাল ১০টার দিকে বাড়ি থেকে বেড় হয়ে ‘জাঙ্গালীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে’ ভর্তি হতে যায় উদ্ধার হওয়া ওই ছাত্রী। পরে সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকা থেকে ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক অপহরণ করে অটো চালক মোস্তাকিম শেখসহ তার সহযোগীরা। কিছু দিন পূর্বে ওই ছাত্রীকে মোস্তাকিমের সঙ্গে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলো মোস্তাকিমের বাবা ফজু শেখ। মেয়ে অপ্রাপ্ত বয়স্ক ও স্কুল পড়ুয়া থাকায় সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয় ছাত্রীর পরিবার। তাই ক্ষিপ্ত হয়ে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে মোস্তাকিম। এ ঘটনায় অপহৃত ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে বুধবার (১৩ জানুয়ারি) নওগাঁ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

ভিকটিমের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ”অপহরণের পর থেকে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় বিভিন্নস্থানে নিয়ে জিম্মি করে মোস্তাকিম জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।”

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাদিকুর রহমান বলেন, ”অপহৃত ওই ছাত্রীকে বুধবার (১৪ জানুয়ারি) নওগাঁ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মেডিকেল রিপোর্ট না পেয়ে ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।”

এসআই সাদিকুর রহমান আরো বলেন, ”অপহরণের ঘটনায় জড়িত মোস্তাকিম শেখের বাবা ফজলুল হক ওরফে ফজু শেখকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মোস্তাকিমসহ অন্যরা পলাতক। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।”

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close