গাজীপুরসারাদেশ

টঙ্গীতে ‘পুলিশের সোর্স’ হত্যায় জড়িত দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব

বার্তাবাহক ডেস্ক : টঙ্গীতে মাদক ব্যবসার প্রতিবন্ধকতা দূর করতেই পুলিশের সোর্স জাকিরকে হত্যা করে চিহ্নিত মাদক কারবারীরা। গ্রেপ্তার দুই মাদক কারবারি জিজ্ঞাসাবাদে র‌্যাবকে এ তথ্য জানান।

বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) ভোরে টঙ্গীর শিলমুন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে হত্যাকান্ডে জড়িত দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১ সদস্যরা।

গ্রেপ্তাররা হলো, কিশোরগঞ্জ সদরের নীলগঞ্জ এলাকার শুকুর আলীর ছেলে টঙ্গীর চিহ্নিত সন্ত্রাসী মাদক কারবারি বিল্লাল হোসেন (২৭) এবং টঙ্গীর মুরকুন এলাকার মাদক কারবারি রুবেলের স্ত্রী মাদক সম্রাজ্ঞী ঝর্ণা আক্তার (২১)।

বিল্লাল স্থানীয় শিলমুন এলাকায় ভাড়া বাসায় ও ঝর্ণা টঙ্গী রেলওয়ে জংশন সংলগ্ন জিআরপি বস্তিতে থাকে।

র‌্যাব তাদের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ড ব্যবহৃত একটি চাকু ও দুইটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-১ জানায়, বৃহস্পতিবার ভোরে র‌্যাব-১ সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টঙ্গী পূর্ব থানাধীন শিলমুন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে বর্ণিত হত্যাকাণ্ডে জড়িত মামলার এজাহারনামীয় উল্লিখিত দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ১টি সুইচ গিয়ার (অত্যাধুনিক চাকু) ও ২টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব আরো জানায়, গ্রেপ্তার দুই আসামী প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বর্ণিত হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জানায়, সোর্স জাকিরের তৎপরতায় তাদের মাদক কারবার ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে বিঘ্ন ঘটছিলো। বিল্লাল ইতিপূর্বে জোড়া খুনের অপরাধে গ্রেপ্তার হয়ে জেলে যায়। জামিনে মুক্তি পেয়ে আবারো মাদক কারবার ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ে। অপর আসামী মাদক সম্রাজ্ঞী ঝর্ণা আক্তারের স্বামী রুবেল গ্রেপ্তার হওয়ার পেছনেও সোর্স জাকিরের ভূমিকা রয়েছে বলে তারা জানতে পারে। এরই প্রতিশোধ হিসেবে ধৃত আসামীদ্বয় তাদের পথের কাঁটা ডিবি পুলিশের সোর্স জাকিরকে হত্যার পরিকল্পনা করে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার দিনদুপুরে সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারিরা ডিবি পুলিশের সোর্স জাকিরকে স্থানীয় জিআরপি বস্তির সামনের রাস্তায় কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছিলো।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close