খেলাধুলা

হ্যারি কেইনের জোড়া গোলে নাটকীয় জয় পেল ইংল্যান্ড

খেলাধুলা ডেস্ক : সেই ১৯৬৬ সালে শিরোপা ছুঁয়ে দেখেছে ইংল্যান্ড। এরপর অতিক্রান্ত হয়েছে অর্ধশতকেরও বেশি সময়। তবে তা স্পর্শ করে দেখার আর স্বাদ হয়নি ইংলিশদের।

এবার সেই খরা ঘোচাতে মরিয়া তারা। সেই লক্ষ্যে মিশনে নামেন গ্যারেথ সাউথগেটের শিষ্যরা। তারা মুখোমুখি হন তিউনিশিয়ার।

ইংল্যান্ডের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় দল বলা হচ্ছে এবারের বিশ্বকাপের স্কোয়াডকে। ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বাছাইয়ে‍ দু্র্দান্ত পারফর্ম করে আসা ‘থ্রি লায়ন্স’কে ঘিরে ইংলিশদের স্বপ্নটাও বড়। সেই স্বপ্নের শুরুটা হলো তাদের দারুণ। হ্যারি কেইনের জোড়া লক্ষ্যভেদে তিউনিসিয়ার বিপক্ষে ২-১ গোলের নাটকীয় জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড।

চমৎকার শুরু কাজে লাগিয়ে দ্রুতই লিড নেয় ইংলিশরা। অধিনায়ক হ্যারি কেইনের লক্ষ্যভেদে উৎসবে মাতে ইংল্যান্ড। দশম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার বড় স্কোরেরই ইঙ্গিত দিয়েছিল তারা। কিন্তু গোলের সংখ্যা বাড়া তো দূরে থাক, উল্টো তাদের হতাশ করে তিউনিসিয়া সমতায় ফেরে প্রথমার্ধেই। ফারজানি সাসির পেনাল্টি গোলে ইংল্যান্ডকে ১৯৬৬ সালের চ্যাম্পিয়নদের আটকেই দিয়েছিল প্রায়। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি টাইমে কেইনের হেডে নাটকীয় জয় পায় ইংল্যান্ড।

ক্লাব ফুটবলে টটেনহামের জার্সিতে কাটিয়ে আসা কেইনের ফর্মটাই দেখা গেল ইংল্যান্ডের জার্সিতে। তার জাদুতেই ৩ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে ইংল্যান্ড। ড্রটাই যখন মনে হচ্ছিল সম্ভাব্য ফল, ঠিক তখনই কেইন-চমক। দুর্দান্ত হেডে ইংলিশ অধিনায়ক নিশ্চিত করেন জয়। ইনজুরি টাইমের প্রথম মিনিটে কর্নার থেকে উড়ে আসা বল হেড করেছিলেন হেন্ডারসন। মাথায় ঠিক মতে লাগাতে না পারলেও বল ভাসতে ভাসতে চলে আসে ফাঁকায় থাকা কেইনের কাছে। টটেনহাম স্ট্রাইকার হেডে লক্ষ্যভেদ করে আনন্দে ভাসান ইংলিশদের।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close