আলোচিত

মায়ের কাছে শিশু যাবে প্রতি শুক্র ও শনিবার: হাইকোর্ট

বার্তাবাহক ডেস্ক : পারিবারিক কলহের কারণে আলাদা থাকছেন স্বামী-স্ত্রী। কিন্তু তাদের শিশু সন্তান কার কাছে থাকবেন? এ নিয়ে সিদ্ধান্তে আসতে একপর্যায়ে হাইকোর্ট পর্যন্ত গড়িয়েছে তাদের ঘটনা।

হাইকোর্ট বলেছেন, শিশু আহনাছ তাহহিমের বাবা মাহবুব আলম ও মা জাকিয়া আক্তারের সম্পর্ক ভালো করতে হবে। এ জন্য তাদের আগামী ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত সময় দিয়েছেন আদালত। তবে, প্রতি শুক্র ও শনিবার শিশুটিকে তার মায়ের কাছে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ সংক্রান্ত বিষয়ে শুনানি নিয়ে রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি জেবি এম হাসান ও বিচারপতি মো.খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে মাহবুব আলমের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট শ. ম. রেজাউল করিম। তার সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুর রাজ্জাক ও তুষার রায়। অন্যদিকে জাকিয়া আক্তারের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট কাজী মো. সাজোয়ার হোসেন।

জানা গেছে, এই দম্পতি ২০১২ সালের ৫ অক্টোবর পারিবারিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। স্বামী মাহবুব আলম একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। আর স্ত্রী জাকিয়া আক্তার রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএর শিক্ষার্থী। তাদের সংসারে আসা শিশু আহনাছ তাহহিমের বয়স এখন ৩ বছর ৮ মাস বয়স। বিয়ের কয়েক বছর পর কলহে জড়িয়ে পড়েন মাহবুব ও জাকিয়া। নিজেদের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদে ঘটনা না ঘটলেও প্রায় আড়াই বছর ধরে তারা অালাদা বসবাস করছেন। তাহহিম তার মায়ের কাছেই থাকতো।

কিন্তু গত জুলাই মাসে মাহবুব তার সন্তান তাহহিমকে দাওয়াত খাওয়ার কথা বলে নিজের কাছে নিয়ে যায়। এরপর শিশুকে আর তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে না দেয়ায় সন্তানকে নিজের কাছে নিতে হাইকোর্টে রিট করেন জাকিয়া।

সে রিটের শুনানি নিয়ে গত ১০ জুলাই শিশু আহনাছ তাহহিমকে কেন তার মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে, শিশুটিকে সঙ্গে নিয়ে তার বাবা মাহবুব আলমকে আদালতে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মাহবুব তার সন্তান তাহহিমকে নিয়ে গত ৮ আগস্ট আদালতে হাজিরা দেন। এ সময় তাহহিমের মা জাকিয়া আক্তারও আদালতে হাজির ছিলেন।

একপর্যায়ে আদালত শিশু তাহহিম ও তার বাবা-মা এবং উভয়পক্ষের আইনজীবীদের খাস কামরায় ডেকে বিস্তারিত শোনেন। পরে সংসার এবং সন্তানের কথা চিন্তুা করে দুজনকে পুনরায় মিলে যেতে অনুরোধ করে সময় দেন হাইকোর্ট। এ পরিপ্রেক্ষিতে রোববার (৭ অক্টোবর) তাহহিমকে সঙ্গে নিয়ে আদালতে হাজির হন তার বাবা-মা।

আদালতে আজ শুনানি করার শুরুতে সাজোয়ার হোসেন আদালতকে বলেন, সন্তানটি তার মায়ের কাছে থাকুক। সন্তানকে কাছে না পেয়ে তার মা মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে যাচ্ছেন।

তখন রেজাউল করিম বলেন, তাদের সম্পর্কোন্নয়নে আপনারা সময় নিয়েছিলেন। কিন্তু কোনো উন্নতি হয়নি। এ মামলায় পর্দার আড়ালে অনেক কিছুই আছে, সেগুলো এখানে সবার সামনে আনা ঠিক হবে না।

এ পর্যায়ে সাজোয়ার হোসেন বলেন, আমাদের কাছে কিছু ছবি আছে, সেগুলো দেখাতে চাই। তখন রেজাউল করিম বলেন, আমার কাছেও প্রেমের ডায়েরি (জাকিয়া আক্তারের) রয়েছে।

এ সময় আদালত তাহহিমের বাবা-মাকে আগামী ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত সময় দেন এবং ওইদিন পুনরায় সবাইকে হাজির থাকতে বলেন। এ ছাড়া এই সময়ের মধ্যে সম্পর্কোন্নয়নে চেষ্টা করতে বলা হয়েছে। আর এ সময়ের মধ্যে তাহহিম তার বাবার কাছেই থাকবে। তবে, প্রতি শুক্র ও শনিবার শিশুটিকে তার মায়ের কাছে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

 

সূত্র: জাগোনিউজ

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close