আলোচিত

২০০ গ্রাম ইয়াবা বাণিজ্যের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, বিল পাস

বার্তাবাহক ডেস্ক : ২০০ গ্রাম বা তার বেশি ইয়াবা অথবা ২৫ গ্রামের বেশি হেরোইন ও কোকেইন উৎপাদন, কেনাবেচা ও ব্যবহারের সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন সাজার বিধান রেখে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ বিল-২০১৮ পাস করা হয়েছে।

শনিবার জাতীয় সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বিলটি উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

বিল অনুযায়ী, ২০০ গ্রাম ইয়াবা বা এর মুখ্য উপাদান অ্যামফিটামিন পরিবহন, কেনাবেচা, মজুদ, উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাত, সেবন ও ব্যবহারের শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

২০০ গ্রামের কম ইয়াবার ক্ষেত্রে শাস্তি হবে জরিমানার পাশাপাশি এক থেকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড।

বিলে ইয়াবা ও অ্যামফিটামিন পদার্থকে ‘এ’ ক্যাটাগরির মাদক হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, যা ১৯৯০ সালের মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে ছিল না।

হেরোইন, কোকেইন ও কোকা থেকে উৎপন্ন ২৫ গ্রামের বেশি মাদক পরিবহন, কেনাবেচা, মজুদ, উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাত, সেবন ও ব্যবহারের শাস্তি হবে মৃত্যুদণ্ড অথবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। আর ২৫ গ্রামের কমে (‘এ’ ক্যাটাগরির মাদক) শাস্তি হবে দুই থেকে ১০ বছরের কারাদণ্ড।

বিল অনুযায়ী, যদি কোনো ব্যক্তি অথবা সংগঠন এমন অপরাধে অর্থায়ন, টাকা-পয়সা সরবরাহ অথবা পৃষ্ঠপোষকতা করে, তাহলে আইন অনুযায়ী তাদেরও একই ধরনের শাস্তি হবে।

ইয়াবা, সিসা ও ডোপ টেস্টকে এই বিলে একীভূত করা হয়েছে, যা ১৯৯০ সালের মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে ছিল না। এ ছাড়া বিলে মাদক হিসেবে খাটের কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close