খেলাধুলা

বিশ্বকাপের পর প্রথমবার আর্জেন্টিনা দলে মেসি

খেলাধুলার বার্তা : কোপা আমেরিকার আগে দারুণ খবর পেলো আর্জেন্টিনা। ৮ মাসের স্বেচ্ছা নির্বাসন শেষে জাতীয় দলে ফিরতে রাজি হয়েছেন লিওনেল মেসি। ভেনেজুয়েলা ও মরক্কোর বিপক্ষে সামনের দুটি প্রীতি ম্যাচের দলেও আছেন তিনি।

ফ্রান্সের কাছে শেষ ষোলোতে হেরে রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায় আর্জেন্টিনা। তারপর থেকে আর জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দেননি মেসি। আর কোনোদিন ফিরবেন কিনা সেটা নিয়ে ছিল অনিশ্চয়তা।

অবশ্য নতুন কোচ লিওনেল স্কোলানি বারবার আশার কথাই শুনিয়েছেন। পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে ফেরানোর আশ্বাস দেন তিনি। শেষ পর্যন্ত দলের প্রাণভোমরাকে ফেরাতে পারলেন।

পরের দুটি প্রীতি ম্যাচের জন্য ৩১ জনের দলে বিশ্বকাপের পর প্রথমবার ফিরেছেন আনহেল দি মারিয়া। মেসিকে খেলানোর ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বুয়েন্স আয়ার্সে সংবাদ সম্মেলনে স্কোলানি বলেছেন, ‘মেসিকে দলে ডাকা হয়েছে। সে একটি নাকি দুটি ম্যাচ খেলবে, সিদ্ধান্তটা আমরা নিবো।’

মেসিকে দুটি ম্যাচই খেলানোর চাপ দিতে চান না আর্জেন্টিনার কোচ, ‘সে অনেক ম্যাচ খেলছে এবং শারীরিকভাবে সব খেলোয়াড়রা মৌসুমের এই সময় ক্লান্ত থাকে এবং আন্তর্জাতিক বিরতিতে বিশ্রাম নেয়। সে আসতে চেয়েছে এবং এটাই গুরুত্বপূর্ণ খবর। আমি সিদ্ধান্ত নিবো (কয়টি ম্যাচ খেলবে), অন্য কেউ নয়। আমরা এখনও জানি না।’

ম্যানসিটির সের্হিও আগুয়েরো ও চেলসির গনসালো হিগুয়েইন এবারও স্কোলানির দলে জায়গা পায়নি। নেই মাউরো ইকার্দিও। ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের কারণে আগুয়েরো ডাক পাচ্ছেন না এমন গুজব উড়িয়ে দিলেন কোচ, ‘আগুয়েরোর সঙ্গে আমার সম্পর্ক একেবারে দারুণ। তার সঙ্গে কখনও আমার দ্বন্দ্ব ছিল না। ভালো একজন খেলোয়াড় সে। তাকে যাচাইয়ের প্রয়োজন নেই আমার, অন্য খেলোয়াড়দের দেখতে হবে।’

জুভেন্টাস ফরোয়ার্ড পাউলো দিবালা আক্রমণভাগে সঙ্গ দেবেন মেসিকে। স্কোলানি দুজনকে নিয়ে আশাবাদী, ‘মেসি ও দিবালা একসঙ্গে খেলতে পারে, তারা দুজন চমৎকার খেলোয়াড়।’

আগামী ২২ মার্চ অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের মাঠ ওয়ান্দা মেত্রোপোলিতানোতে ভেনেজুয়েলার মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। চারদিন পর তাঙ্গিয়েরের গ্র্যান্ড স্টেডিয়ামে মরক্কোর বিপক্ষে খেলবে দ্বিতীয় প্রীতি ম্যাচ।

আর্জেন্টিনা দল

গোলরক্ষক- ফ্রাঙ্কো আরমানি, অগাস্তিন মারচেসিন, হুয়ান মুসো, এস্তেবান আন্দ্রাদা।

ডিফেন্ডার- জার্মান পেজেয়া, গ্যাব্রিয়েল মের্কেদো, হুয়ান ফয়েথ, নিকোলাস ওতামেন্দি, নিকোলাস তাগলিয়াফিকো, ওয়াল্টার কানেম্যান, মার্কোস আকুনা, গনসালো মনতিয়েল, রেনসা সারাভিয়া, লিসান্দ্রো মার্তিনেস।

মিডফিল্ডার- লিয়েন্দ্রো পারেদেস, গুইদো রদ্রিগেস, জিওভানি ল চেলসো, ম্যানুয়েল লানসিনি, রবের্তো পেরেইরা, আনহেল দি মারিয়া, মাতিয়াস জারাচো, ইভান মারকোনে, দোমিঙ্গো ব্লাঙ্কো, রোদ্রিগো দে পল।

ফরোয়ার্ড- লিওনেল মেসি, আনহেল কোরেয়া, পাউলো দিবালা, দারিও বেনেদেত্তো, লোতারো মার্তিনেস, মাতিয়াস সুয়ারেস, গনসালো মার্তিনেস।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close