আলোচিত

সারাদেশে বায়ুদূষণে বিশেষ সতর্কতা

বার্তাবাহক ডেস্ক : বায়ু দূষণে বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে বাংলাদেশ। দূষণের মাত্রা অতিরিক্ত হারে বেড়ে যাওয়ায় জরুরি সর্তকতা জারিরও সুপারিশ এসেছে। সবচেয়ে বেশি বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছে গাজীপুর, নারায়নগঞ্জ এবং চট্টগ্রাম শহরে। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া এই সব অঞ্চল ভ্রমণে নিরুৎসাহীত করারও পরামর্শ এসেছে।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বায়ু দূষণের এই বিষয়গুলো তুলে ধরে সুপারিশ করেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিইউএইচও) নীতিমালা অনুসারে বায়ু দূষণের মাত্রা ৩০০ এর উপরে উঠলে তা বিপজ্জনক বলে ঘোষণা করা হয়। এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (একিউআই) এর দ্বারা বায়ু দূষণের মান নির্ণয় করা হয়।

একিউআই যত বেশি হয়, দূষণের মাত্রাও তত বেশি হিসেবে ধরা হয়। একিউআই শূন্য থেকে ৫০ এর ভেতর থাকলে বাতাসের মান খুবই ভালো। ৫০ থেকে ১০০ হলে তুলনায় একটু কম ভালো। ১০১ থেকে ১৫০ হলে যাদের শ্বাসকষ্ট বা ওই জাতীয় সমস্যা আছে, তাদের জন্যে খারাপ। ১৫১ থেকে ২০০ হলে অস্বাস্থ্যকর বায়ু হিসেবে গণ্য করা হয়। ২০১ থেকে ৩০০ মানে অতি অস্বাস্থ্যকর। আর ৩০১ থেকে ৫০০-র মধ্যে একিউআই থাকলে ক্ষতিকর বা বিপজ্জনক।

দেশের বেশ কিছু অঞ্চলই একিউই মান ৩০০ এর মাত্রা অতিক্রম করেছে। সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় ৬ মার্চ। তাদের হাতে আসা ৫ মার্চের বায়ু দূষণের রিপোর্ট ছিলো ভয়াবহ রকম উদ্বেগজনক। ওই বৈঠকে উপস্থিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী জানান, ৫ মার্চ ঢাকায় বায়ু দূষণের মাত্রা ছিলো ৪৭৯, নারায়নগঞ্জে ৪২০ এবং গাজীপুর ও চট্টগ্রামেও এর মাত্রা ৩০০ এর উপরে ছিলো। যা বিপজ্জনক।

তিনি বলেন, ‘এই পরিস্থিতিতে চীন ও থাইল্যান্ডে বিশেষ সতর্ক অবস্থা জারি করে এবং তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ঘোষণা করে।’

সভায় সংসদীয় এ কমিটির সদস্য পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, জাফর আলম এবং মো. রেজাউল করিম বাবলু এ বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে জিওগ্রাফিক ইনফরমেশন সিস্টেম (জিআইএস) প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বন অধিদপ্তর কর্তৃক বনের আওতাধীন সীমানা নির্ধারণ করে গত ৪ বছরে সামগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনাপূর্বক হালনাগাদ একটি প্রতিবেদন উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে ‘ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) বিল, ২০১৯’ একাদশ জাতীয় সংসদে অনুমোদিত হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

সারা বিশ্বের বায়ুমান নিয়ে করা গ্রিনপিস এবং এয়ারভিজ্যুয়াল এক গবেষণা প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশ বিশ্বের সবচেয়ে বায়ু দূষিত দেশ এবং ঢাকা দূষিত রাজধানী শহরগুলোর মধ্যে দ্বিতীয়।

 

আরো জানতে…….

‘বায়ুদূষণ রোধে দৃশ্যমান উদ্যোগ নেই সরকারের’?

বায়ুদূষণে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি আয়ু কমছে বাংলাদেশিদের

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close