আন্তর্জাতিক

ভারতে সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করতে গিয়ে ৭ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক বার্তা : ভারতের পশ্চিমাঞ্চলে হোটেলের সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করতে গিয়ে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে সাত জনের মৃত্যু হয়েছে।

গুজরাট রাজ্যের ভাদোদারা জেলায় শুক্রবার রাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে শনিবার দেশটির পুলিশ জানিয়েছে। নিহতদের মধ্যে তিনজন ওই হোটেলের কর্মচারি আর বাকি চারজনকে ট্যাংকটি পরিষ্কার করার জন্য আনা হয়েছিল। খবর এনডিটিভির।

গুজরাটের ভাদোদরা শহর থেকে ৩৫ কিমি দূরে অবস্থিত ফার্টিকুই গ্রামের এক হোটেলে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে। ইতিমধ্যে নিহতদের শনাক্ত করা হয়েছে।

ভাদোদারা ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা নিকুঞ্জ আজাদ ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলেন, প্রথমে একজন পরিচ্ছন্ন কর্মী ট্যাংকে প্রবেশ করে। বহুক্ষণ হয়ে গেলেও সে বের হচ্ছিল না। তাকে ডাকা হলে কোনো সাড়া না পাওয়ায় অপর তিন পরিচ্ছন্ন কর্মী তাকে সাহায্য করতে সেখানে প্রবেশ করে।

তিনি আরও বলেন, অনেকক্ষণ পরেও এদের কেউই ট্যাংকের ভেতর থেকে কোন সাড়া না দিলে হোটেলের তিন কর্মচারী সেখানে প্রবেশ করেন। পরে সাতজনের সবাই সেখানে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যান।

ঘটনার কারণ জানতে পুলিশ তদন্ত করতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন দাভোই থানার ডিএসপি কল্পেশ সোলাঙ্কি।

ভারতে দলিত সম্প্রদায়ের হাজার হাজার মানুষ, ভূগর্ভস্থ পাইপ ও সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কারের কাজ করে। তারা কোন ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা বা মুখোশ না পরেই অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ এ কাজ করে থাকে।

প্রসঙ্গত, পরিচ্ছন্ন কর্মীদের দিয়ে এভাবে নর্দমা পরিষ্কারের কাজ দীর্ঘদিন আগেই নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এ নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনও হয়েছে দেশজুড়ে। তারপরেও জাত-পাতের বিভেদ এবং বংশ পরম্পরায় অন্য কাজ কপালে জোটে না ভারতীয় পরিচ্ছন্ন কর্মীদের।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close