খেলাধুলা

ফুটবলকে বিদায় বললেন ২০১০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেরা খেলোয়াড়

খেলাধুলার বার্তা : গত বছরের মার্চে খেলেছিলেন শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। এবার ঘরোয়া ফুটবল থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিলেন। ফুটবলকে বিদায় বললেন ২০১০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেরা খেলোয়াড় ওয়েসলি স্নেইডার।

অ্যারিয়ান রোবেন, রবিন ভন পার্সি, মার্ক ভ্যান বোমেলদের নিয়ে ২০১০ বিশ্বকাপের ফাইনালে নেদারল্যান্ডসকে পৌঁছে দিয়েছিলেন স্নেইডার। যদিও শেষ পর্যন্ত স্বপ্নভঙ্গ হয় তাদের। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার একমাত্র গোলে বিশ্বকাপের শিরোপা জেতে স্পেন। শিরোপা হারালেও স্নেইডার বিশ্বকাপের অসাধারণ পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছিলেন। টুর্নামেন্টের সিলভার বল বা দ্বিতীয় সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছিলেন স্নেইডার।

সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে নেদারল্যান্ডসের জার্সি গায়ে ১৪ বছর খেলেছেন স্নেইডার। এ সময়ে ১৩৪টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। নেদারল্যান্ডসের হয়ে সবথেকে বেশি ম্যাচও খেলেছেন তিনি। ৩৫ বছর বয়সী এ তারকা তার বর্ণিল ক্যারিয়ারে রিয়াল মাদ্রিদ, ইন্টার মিলান ও আয়াক্সের মতো ইউরোপের সেরা ক্লাবগুলোতে খেলেছেন। ইতালিয়ান সিরি এ লীগে ইন্টারের হয়ে লীগ শিরোপা, ইতালিয়ান কাপ ও চ্যাম্পিয়নস লীগসহ ২০১০ সালে ট্রেবল জয়েরও রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি। এছাড়া নেদারল্যান্ডস, স্পেন এবং তুরস্কেও লীগ শিরোপা জিতেছেন স্নেইডার।

অবসরে যাওয়ার দুটি কারণ আছে স্নেইডারের। কাতারের ক্লাব আল ঘাফারার সঙ্গে চুক্তি শেষ হওয়ার পর শেষ ১৮ মাসে তাকে সাইন করেনি কোনো ক্লাব। এছাড়া নেদারল্যান্ডসের ক্লাব আটরেকটের পরামর্শক হিসেবে কাজ করবেন তিনি। প্রাইভেট বক্সে বসে দলটির খেলা দেখবেন স্নেইডার।

অবসর নিয়ে স্নেইডার বলেছেন,‘এ শহরের প্রতি আমার ভালোবাসার কমতি নেই। এখন আমি খেলা থেকে অবসর নিয়েছি। একটি ভালো জায়গায় আমি আমার অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করব।’

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close