জাতীয়

৫৪৯৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ১২ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন

বার্তাবাহক ডেস্ক : পাঁচ হাজার ৪৯৮ কোটি ৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ১২ প্রকল্প অনুমোদন করেছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহি কমিটি (একনেক)। এর মধ্যে জিওবি প্রায় ৫ হাজার ৪১৬ কোটি ৪ লাখ টাকা এবং বৈদেশিক অনুদান ৭৮ কোটি টাকা প্রায়।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) শেরে বাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনক সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

অনুমোদিত প্রকল্পসমূহ হলো নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের ‘বেনাপোল স্থলবন্দরে কার্গো ভেহিকেল টার্মিনাল নির্মাণ’ প্রকল্প; সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের ৪টি প্রকল্প যথাক্রমে ‘আলীকদম-জালানিপাড়া-কুরুকপাতা-পোয়ামুহুরী সড়ক (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প; ‘টেকসই ও নিরাপদ মহাসড়ক গড়ে তোলার জন্য ৪টি জাতীয় মহাসড়কের পার্শ্বে পণ্যবাহী গাড়ি চালকদের জন্য পার্কিং সুবিধা সংবলিত বিশ্রামাগার স্থাপন’ প্রকল্প; ‘বড়তাকিয়া (আবুতোরাব) থেকে মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল সংযোগ সড়ক নির্মাণ (২য় সংশোধিত)’ প্রকল্প; এবং ‘খুলনা-চুকনগর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের খুলনা শহরাংশ (৪.০০ কিলোমিটার) চার লেনে উন্নীতকরণ’ প্রকল্প; স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের ২টি প্রকল্প যথাক্রমে ‘উত্তরা এলাকায় পয়ঃ শোধনাগার নির্মাণের জন্য ভূমি অধিগ্রহণ’ প্রকল্প; এবং ‘ইসিবি চত্ত্বর হতে মিরপুর পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন এবং কালশী মোড়ে ফ্লাইওভার নির্মাণ (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প; মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ‘সমতল ভূমিতে বসবাসরত অনগ্রসর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির আর্থ-সামাজিক ও জীবন মানোন্নয়নের লক্ষ্যে সমন্বিত প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন’ প্রকল্প; কৃষি মন্ত্রণালয়ের ‘পুকুর পুনঃখনন ও ভূ-উপরিস্থ পানি উন্নয়নের মাধ্যমে ক্ষুদ্র সেচে ব্যবহার’ প্রকল্প; স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ‘কর্ণেল মালেক মেডিকেল কলেজ ও ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল স্থাপন, মানিকগঞ্জ (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প; বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ‘বেগম আমিনা মনসুর টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট, কাজিপুর, সিরাজগঞ্জ (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্প এবং কৃষি মন্ত্রণালয়ের ‘সমন্বিত খামার ব্যবস্থাপনা অঙ্গ-২ পর্যায় (আইএফএমসি-২)’ প্রকল্প।

একনেক সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের বলেন, সড়কে অনেক সময় যানবাহন শৃঙ্খলভাবে চালানো হয় না। এজন্য দেশের সব সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, একনেক সভায় ‘খুলনা-চুনকা-সাতক্ষীরা মহাসড়ক খুলনা চারলেনে উন্নীতকরণ’ প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রকল্পটি অনুমোদনের সময় কিছু ফুটেজ দেখানো হয়। ফুটেজে দেখা গেছে সড়কে যানবাহন এলোপাতাড়িভাবে রাখা। সড়কও আঁকাবাঁকা। এসব ছবি দেখে প্রধানমন্ত্রী সড়কের শৃঙ্খলা ফেরানোর নির্দেশ দেন।

সড়ক রক্ষার্থে প্রধানমন্ত্রী সভায় বলেন, পণ্যবাহী কোনো যানবাহন বা ট্রাক যাতে ওভারলোড হয়ে সড়কে না উঠে সেজন্য সংশ্লিষ্টদের খেয়াল রাখতে হবে। সড়কের নিয়ম-শৃঙ্খলা রক্ষা করতে হবে। সড়কের পাশে একই ধরনের প্রকল্প যেন অনেকে বাস্তবায়ন না করে এই বিষয়টিও খেয়াল রাখতে হবে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close