আলোচিত

পুলিশের এ কেমন ওয়েবসাইট

বার্তাবাহক ডেস্ক : দেশের প্রায় সব সরকারি প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার ওয়েবসাইট রয়েছে। এরমধ্যে কোনও কোনও মন্ত্রণালয়, দফতর বা অধিদফতরের ওয়েবসাইট খুবই সমৃদ্ধ। এগুলো নিয়মিত হালনাগাদ (আপডেট) করা হয়। তবে কিছু কিছু ওয়েবসাইটে নিয়োগ-বদলি ছাড়া অন্য কোনও তথ্য হালনাগাদ করা হয় না। এরমধ্যে পুলিশ সদর দফতরসহ তাদের বিভিন্ন ইউনিট ও ব্যাটালিয়নের ওয়েবসাইটগুলোর অবস্থা আরও বেহাল। অপরাধ বিষয়ক পরিসংখ্যানসহ গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্যই সেখানে পাওয়া যায় না। অথচ কয়েক বছর আগেও নিয়মিত এসব তথ্য হালনাগাদ করা হতো।

অবশ্য পুলিশ সদর দফতরের আইসিটি শাখার দাবি, নিয়মিত ওয়েবসাইটের তথ্য হালনাগাদ করা হয়। তবে কখনও কখনও কাজের চাপে তথ্য আপলোডে সময় লেগে যায়।

পুলিশ সদর দফতর: ওয়েবসাইটে ‘ক্রাইম স্ট্যাটিসটিক’ নামে একটি ক্যাটাগরি ছিল। তবে সেটি পাওয়া যায় না। ফলে অপরাধ বিষয়ক তথ্যও পুলিশ সদর দফতরের ওয়েবসাইটে নেই। তবে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে পুলিশের কার্যক্রম নিয়ে হালনাগাদ তথ্য দেখা যায় সেখানে। পুলিশের হাউজিং নিয়েও ২৯ আগস্ট (২০১৯) পর্যন্ত কিছু বিষয়ে হালনাগাদ তথ্য রয়েছে। আছে টেন্ডার সংক্রান্ত তথ্যও। ‘রিস্টেন্ট অ্যাকটিভিটিজ’ ক্যাটাগরিতে আইজিপির বিভিন্ন অনুষ্ঠানের কিছু প্রেসরিলিজ রয়েছে। তবে অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্সসহ বিভিন্ন নাগরিক সুবিধা সংক্রান্ত ক্যাটাগরিতে হালনাগাদ কোনও তথ্য নেই। কোনও কোনোটি খোলেই না।

পুলিশের দুটি ব্যাটালিয়নসহ কয়েকটি ইউনিট রয়েছে। ব্যাটালিয়ন দুটি হলো র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। এরমধ্যে র‌্যাবের আলাদা একটি ওয়েবসাইট রয়েছে। মূল ব্যাটালিয়ন এপিবিএন-এর আলাদা কোনও ওয়েবসাইট না থাকলেও তাদের একটি ইউনিট এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশের আলাদা ওয়েবসাইট রয়েছে। যেখানে ওই টিমের কাজ ও কর্মকর্তাদের বিষয়ে কিছু তথ্য দেওয়া আছে।

র‌্যাব: পুলিশের অন্যান্য ইউনিটের চেয়ে কিছুটা হালনাগাদ থাকে। ওয়েবসাইটে তাদের ১৫টি ইউনিটের তথ্যসহ বিভিন্ন বিষয়ে তথ্য পাওয়া যায়।

পিবিআই: বর্তমান সময়ে বিভিন্ন মামলার তদন্তের কারণে পুলিশের বিশেষ তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) আলোচিত। ইউনিটটির আলাদা ওয়েবসাইট রয়েছে। পুলিশের অন্যান্য ইউনিটের চেয়ে তাদের ওয়েবসাইটে সংস্থাটির বিষয়ে তথ্য দেওয়াসহ কিছু নতুনত্ব আনার চেষ্টা চোখে পড়ে। তবে সেখানেও প্রয়োজনীয় সব তথ্য পাওয়া যায় না।

এসবি: স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) নিজস্ব কোনও ওয়েবসাইট নেই। তবে পুলিশ সদর দফতরের ওয়েবসাইটের ‘এসবি ক্যাটাগরি’তে ক্লিক করলে ইমিগ্রেশন পুলিশের ওয়েবসাইট খোলে। সেখানে ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত কিছু তথ্য দেওয়া আছে।

ডিএমপি: ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ওয়েবসাইটে ২০১৯ সালের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারির অপরাধ সংক্রান্ত তথ্য রয়েছে। তবে দুটি মাসেই ক্লিক করলে কেবল ফেব্রুয়ারির প্রতিবেদন দেখা যায়। সেখানেও কেবল অস্ত্র, গোলাবারুদ ও বিস্ফোরক, চোরাইগাড়ি ও মাদকদ্রব্য উদ্ধারের তথ্য দেখা যায়। ২০১৮ সালের সব মাসেরও ডেটাতেও কেবল এসব বিষয়ের তথ্য রয়েছে। ২০১৭ সালের তথ্য রয়েছে জানুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত। তবে ২০১৫ সালের তথ্য মোটামুটি বিস্তারিত আছে। ২০১১ সালের ফাইলগুলো খোলে না।

তবে ‘ডিএমপি নিউজ’ নামে তাদের একটি আলাদা নিউজ পোর্টাল রয়েছে। এতে ডিএমপি কমিশনারের বিভিন্ন অনুষ্ঠানের বক্তব্য ও ছবি ছাড়াও ঢাকা মহানগর পুলিশের বিভিন্ন উদ্ধার অভিযান, গ্রেফতার, ট্রাফিক পুলিশের মামলা সংক্রান্ত হালনাগাদ কিছু তথ্য পাওয়া যায়।

ওয়েবসাইট নিয়মিত কেন আপডেট করা হয় না জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) উপ-কমিশনার (সদর দফতর ও প্রশাসন) মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘কিছু বিষয় আছে, যেমন প্রতিমাসেই আমাদের ক্রাইম কনফারেন্স হচ্ছে। যেখানে যেভাবে আপডেট করা দরকার আমরা সেভাবে করে রাখি।’ ক্রাইমের পরিসংখ্যানের বিষয়টিও কীভাবে নতুন করে আপডেট করা যায় সেটা তারা দেখবেন বলে জানান তিনি।

সিএমপি: চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) ওয়েবসাইটেরও একই অবস্থা। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরের পর আর কোনও অপরাধ বিষয়ক তথ্য হালনাগাদ করা হয়নি। তবে যে পর্যন্ত তথ্য দেওয়া আছে সেগুলো পুলিশের পুরানো নিয়মে থানা ও অপরাধের ক্যাটাগরি অনুযায়ী মোটামুটি বিস্তারিত আছে।

আরএমপি: রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) ওয়েবসাইটে ‘আওয়ার সার্ভিস’ কলামে ১০টি ক্যাটাগরি রয়েছে। এরমধ্যে ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট ও ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের দুটো পাতা খোলে। এ দুটি পাতায় দুটি বিভাগ সম্পর্কে কিছু কথা লেখা রয়েছে। বাকি ৮টি ক্যাটাগরিতে ক্লিক করলে দেখা যায় ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’।

তবে ‘আরএমপি নিউজ’ নামে একটি ক্যাটাগরি আছে। যেখানে বিভিন্ন উদ্ধার অভিযানের তথ্য রয়েছে। সেটি গত ২৯ আগস্ট পর্যন্ত হালনাগাদ।

খুলনা মহানগর পুলিশ (কেএমপি), বরিশাল মহানগর পুলিশ (বিএমপি), সিলেট মহানগর পুলিশ (এসএমপি), গাজীপুর মহানগর পুলিশ ও রংপুর মহানগর পুলিশ এবং ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর, ময়মনসিংহ ও রেলওয়ে রেঞ্জের কোনও ওয়েবসাইট পাওয়া যায়নি।

পুলিশের ওয়েবসাইটের তথ্য হালনাগাদের বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশ সদর দফতরের আইসিটি শাখার প্রধান অ্যাডিশনাল ডিআইজি মনিবুর রহমান বলেন, তারা নিয়মিতই ওয়েবসাইট আপডেট করে থাকেন। তবে কখনও কখনও কাজের চাপের কারণে তথ্য আপলোড করতে সময় লাগে বলে জানান তিনি।

 

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close